বুধবার, ২৬ Jun ২০১৯, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম:
ঝালকাঠির কন্যা পরমা সাঁথিয়ায় সাড়ে ৩ বছরের শিশুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা সাটুরিয়ায় মৎস্য চাষিদের অভিজ্ঞতা বিনিময় ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত যশোরের মণিরামপুরে কর্মসূচির তালিকায় মেম্বরের স্বামী ও বিত্তবানদের নাম সাংবাদিকের সাথে পুলিশের অশোভনীয় আচরনের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সাংবাদিক সংগঠন মানিকগঞ্জের জাসদের সভাপতি ইকবাল আর নেই যশোরের উলাশী নীলকুঠি পার্কে বোমা বিষ্ফোরন, ৩ জন আহত মানিকগঞ্জে চাঁদাবাজি বন্ধে প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও ধর্মঘট জলঢাকায় ধর্মপাল ইউনিয়নের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা কেশবপুরের গৌরীঘোনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত মজিদপুর ইউপির চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী নরসিংদীতে ট্রেনে কাটা পড়ে স্কুল পড়–য়া ছাত্র রাজিব মিয়া নিহত যশোর কোতয়ালী থানার পাস থেকে ৩৯১ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক-২ সুন্দরগঞ্জে ব্যক্তিগত জমিতে স্কুল ঘর নির্মাণের অভিযোগ পহেলা জুলাই সোমবার সকাল ১০ টায় কেজিডিসিএল অফিসের সামনে অবস্থান কর্মসূচি নওয়াপাড়া পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডেরউপ-নির্বাচন সম্পন্ন সোনাগাজী প্রেসক্লাব নির্বাচন, সভাপতি মনির -সম্পাদক হানিফ যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি অপূর্ব হাসান স্ট্যান্ডরিলিজ রং নাম্বারে প্রেম-প্রেমের দাওয়াতে পার্লারের আড়ালে দেহ ব্যবসার অভিযোগ বাকেরগঞ্জে উপজেলা ইসলামী যুব সম্মেলন অনুষ্ঠিত
আত্মহত্যা নয়, পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে লিপিকে

আত্মহত্যা নয়, পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে লিপিকে

ফাইল ছবি

গর্জন ডেস্ক: আজ থেকে ৪ বছর আগের কথা, লিপি তখন ৯ম শ্রেণীতে। বারইয়ারহাট কিন্ডারগার্ডেনের ছাত্রী ছিলেন তিনি। স্কুলে যাওয়া আসার পথে কামাল উদ্দিন লিপিকে দেখে পছন্দ করে এবং বিয়ের প্রস্তাব দেয়। অল্প বয়স মেয়ের পরিবার খুব একটা রাজি ছিল না, তবুও কামালের জোরাজুরিতে লিপির বাবারা রাজি হলেন। বেশ ধুমধাম করে শেখ আলম বড় মেয়েকে বিয়ে দিলেন। বরযাত্রী নামক সামাজিক অপসংস্কৃতির বোঝা বইলেন, স্বর্ণ, ফার্নিচার সবই দিলেন। সংসার এগুতে থাকে লিপির। বয়সে অপরিপক্ব মেয়ে সংসারের কাজের হিসেব খুব একটা মাথায় ঢুকতো না,, মাত্র ৯ম শ্রেণীতে পড়া অবস্থায় বিয়ে। কিন্তু স্বামী কামাল উদ্দিন, শশুর শাশুড়ি এমনটা বুঝতো না, কাজ না করার অভিযোগে বার বার বাবার বাড়িতে অভিযোগ করতো। আস্তে আস্তে নির্যাতন শুরু হয় লিপির উপর। এইতো ৩/৪ মাস আগে ফুটফুটে কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। লিপির বোনের ভাষ্যমতে অভিযোগ করে বলেন গর্ভবতী অবস্থায় ওর বোন কে দিয়ে কাজ করাতো। কোনো কিছুই বাছবিচার করতো না। যখন প্রশব হওয়ার সময় এসেছে লিপিকে বাবার বাড়িতে নিয়ে আসা হইছে। সিজারিয়ান ছিলেন লিপি। তাই খরচও হয়েছে অনেক। সব বহন করেছে লিটিল বাবার পরিবার। বাচ্চা হওয়ার এক মাস পর লিপিকে স্বামীর বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। অভিযুক্ত স্বামী কামাল নিজেই জোর করে নিয়ে গেছে। এরপর শুরু হয় আবার অত্যাচার। ঈদের পরদিন মেঝো বোন ফারজানা ও মা দেখতে যায় লিপিকে। লিপির বোন রুবি জানায় তার বোনের হাটু নাকি খুব ফোলা ছিল। হাটতে পারছিলো না। মা মেয়েকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার কথা তুললে কামাল বাধা দেয়, বাজে কথা বলে তাদের।এবং উপস্থিত তাদের সরাসরি লিপিকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। ঘটনার রাত সাড়ে ১০টায় কামাল লিপির ছোট বোন কে ইমোতে বোনের গলায় ফাঁস দেয়া ছবি পাঠায় এবং ফোন দিয়ে বলে তোদের বোনকে গলায় ফাঁস দিয়ে মারা গেছে। যা লাশ নিয়ে যা। এরপরপর লিপির পরিবারের লোকজন লিপির স্বামীর বাড়ি গিয়ে দেখে লিপিকে মাটিতে নামিয়ে রাখা হয়েছে, ঘরের সব মূল্যবান জিনিষপত্র গায়েব এবং কামালসহ ওর মা বাবা পলাতক। ঘটনার পরদিন সকালে লিপির মেঝো বোন যখন কামাল কে ফোন দেয় তখন কামাল এর বক্তব্য এমন ছিল কেনো ফোন দিছস? তোর বোনের লাশ নিয়ে যাস নাই? কিচ্ছু করতে পারবি না আমাদের। তোকেও বিয়ে করবো আমি। তারপর মারবো। লিপির পরিবারের অভিযোগ পুলিশ প্রথমে তাদের মামলা নিতে চায়নি। স্থানীয় ২নং হিঙ্গুলী ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যম আজমনগর ওয়ার্ডের সদস্য দ্বীন মোহাম্মদ গত দুইদিন মামলা তুলে নিতে লিপির পরিবারকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। এছাড়া মামলা তুলে নেয়া শর্তে মোটা অংকের টাকা দেয়ারও প্রস্তাব করছেন বলে জানিয়েছেন লিপির পরিবারের লোকজন। মরদেহ উদ্ধারের পর ওই ঘর তালাবদ্ধ করে দেয় পুলিশ। অথচ গত বুধবার মেম্বার দ্বীন মোহাম্মদ হত্যাকান্ডের ২৪ঘন্টার মধ্যে তালা খুলে ঘরে ঢুকে ধোয়ামোছা করিয়ে খুনের সবরকম চিহ্ন নষ্ট করে ফেলে। এদিকে শোনা যাচ্ছে কামাল পলাতক। এটাও শোনা যাচ্ছে সে তার কর্মস্থল ওমানে চলে গেছে। নিহত লিপির বাবা শেখ আলম দেশবাসী তথা প্রধানমন্ত্রীসহ ক্ষমতাসীন সকলের কাছে বিচার চেয়েছেন। আজ মিরসরাই প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করতে এসে অজ্ঞান হয়ে পড়েন তিনি। এভাবে অল্প বয়সে লিপিদের বিয়ে হবে, আমরা সমাজ বয়সের দিকে না তাকিয়ে লিপিদের হত্যা করে যাবো। ফুটফুট বিবি মরিয়মের বুকের দুধের অভাব পূরণ করবে কে? মায়ের শূন্যতা দিতে পারবে সমাজ?

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2019 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY sdsubrata.info
Translate »