শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:৩০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম:
ঝালকাঠিতে দেশটাকে পরিষ্কার করি দিবস শপথ পাঠ মানিকগঞ্জে নদীর পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু জি কে শামীমকে গুলশান থানায় হস্তান্তর মা হলেন কারাগারে নুসরাতের বান্ধবী মনি খোঁজ মিলছে না জয়পুরহাটের ফজলুল হক চৌধুরীর হাতিরঝিলের লেক থেকে ভেসে উঠা অজ্ঞাত ব্যক্তির মরাদেহ উদ্ধার বোয়ালখালীতে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ কিশোর আটক! সোনাগাজীতে বিদ্যুৎ প্রকল্পের জন্য ভূমি অধিগ্রহন বসতভিটা রক্ষায় বিক্ষোভ সমাবেশ বোয়ালখালীতে পবিত্র যিকরুল কুরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জে পুলিশের উপর হামলাকারী আলোচিত সন্ত্রাসী মুসার সহযোগী কাশেম গ্রেফতার নরসিংদীতে ব্যাংক কলোনী সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সদস্যের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন অন্যান্য সদস্যরা বহিষ্কার করা হয়েছে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে সরকারি সহযোগিতার অপেক্ষায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কাশেম ও তার পরিবার ! সাটুরিয়ার রাধা নগর গ্রামের বকাটে সুমনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে থানায় মামলা দায়ের ঝালকাঠিতে ৩৪ বছরেও মেলেনি প্রতিবন্ধী রহিমার প্রতিবন্ধী ভাতা নবীগঞ্জে একই পরিবারে ৩ জনের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ হরিপুর সীমান্তে মৃতলাশ উদ্ধার নরসিংদীতে মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করায় তিন সংবাদ কর্মীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্ত আইনে মামলা দায়ের কঠোর নজরদারিতে রাজধানীর ক্যাসিনো বা জুয়ার আড্ডা ঝালকাঠিতে ৬ষ্ঠ শ্রেণির স্কুল ছাত্রী সন্তানের মা হলেও বাবার পরিচয় নিয়ে সংশয়
আ স ম রবের বাসায় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং

আ স ম রবের বাসায় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক

ফাইল ছবি

ঢাকা: জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য ও জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব বলেছেন, বিরোধী যত রাজনৈতিক দল আছে, সব দলকে নিয়ে বৃহত্তর ঐক্য গড়ার মাধ্যমে স্বৈরাচারী সরকারের হাত থেকে গণতন্ত্র উদ্ধারের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। সোমবার (১০ জুন) সন্ধ্যায় উত্তরায় আ স ম রবের বাসায় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। আ স ম রব বলেন, নির্বাচনের আগে জাতির কাছে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে জনগণের শাসন প্রতিষ্ঠাসহ রাজনীতির গুণগত পরিবর্তন করার প্রতিশ্রতি দিয়েছিলাম। কিন্তু এখনও তা আদায় করতে পারিনি। আদায় না করা পর্যন্ত আন্দোলন ও ঐক্য অব্যাহত থাকবে। রাষ্ট্রীয়ভাবে ভোট ডাকাতি হয়েছে অভিযোগ করে রব বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে আপনাদের প্রশ্ন থাকতে পারে। কিন্তু এর উত্তর আজকে আমরা দেবো না। আমাদের নেতা ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে বৈঠক করার পর আপনাদের মাধ্যমে জনগণের উত্তর দেবো। সাংবাদিকদের উদ্দেশে রব বলেন, ‘আপনারা জনগণের অংশ, আমাদের অংশ। আশা করি, পজেটিভ নিউজ করবেন। যা করলে জনগণের ক্ষতি না হয়। ঐক্যফ্রন্টের এই নেতা বলেন, ‘কাদের সিদ্দিকী যে চিঠি দিয়েছেন, ড. কামাল হোসেনসহ ঐক্যফ্রন্টের কাছে এই চিঠি উত্তর কী হবে? যদি সংসদ অবৈধ হয়, তাহলে আপনাদের দলের লোকেরা কেন গেলো?’ তিনি আরও বলেন, ‘খালেদা জিয়া কারাগারে। তার হাসপাতালে বোমা পাওয়া গেছে। তার জীবন হুমকির মুখে। হাজার হাজার কর্মী কারাগারে। তাদের কারাগারে রেখে আমরা ঘুমাতে পারি না।’ খালেদা জিয়াসহ সরকারবিরোধী সব নেতাকর্মীকে কারামুক্ত না করা পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান। ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ইস্যুর প্রসঙ্গ উল্লেখ করে রব বলেন, ‘তাকে গ্রেফতার করা হয়নি। একটি নির্যাতনের বিচার হয়নি। রিপোর্ট পাওয়া যায় না। ফলে ঘুষ, দুর্নীতি বেড়েই চলেছে। অন্যায় করলে বিচার হবে, এই কথা দেশের মানুষ ভুলে গেছে। অন্যায় করলে বিচার হবে, এটা বোঝাতে হবে। কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ সকল রাজবন্দির মুক্তির আন্দোলন অব্যাহত থাকবে বলেও জানান আসম রব। সময় দিলেন কাদের সিদ্দিকী বৈঠকে অংশ নেয়ার পর সাংবাদিকদের কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বলেন, আমরা ৮ তারিখ পর্যন্ত সময় দিয়েছিলাম, কোনো উত্তর পাইনি। আজকে দীর্ঘসময় আলোচনা হয়েছে, সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু এটার সিদ্ধান্ত নেয়ার সুযোগ নাই যেহেতু আমাদের প্রবীণ নেতা (ড. কামাল হোসেন) অসুস্থ, সেহেতু বৈঠকটি মূলতবি রাখা হয়েছে। এজন্য আমি আমার দলের সভায় আলোচনা করে আরো অপেক্ষা করবো। যদি সুরাহা হয় আমরা আামাদের জান-প্রাণ দিয়ে লড়াই করবো, আমরাও চাই জাতীয় বৃহত্তর ঐক্য। এখন পর্যন্ত সেই জাতীয় ঐক্যের ভিত শক্তিশালী হয় নাই, এখন অবধি জাতির প্রত্যাশা আমাদের ঐক্যফ্রন্ট করতে পারেনি। আপনি তো বলেছিলেন ৮ তারিখ সমাধান না হলে থাকবেন না- এরকম প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি স্পষ্ট করে বলেছি। এ ব্যাপারে সমাধান করার জন্যই আলোচনা। আমি গত ৪ তারিখ ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে দীর্ঘ সময় আলোচনা করেছি। তারপরে আজকে সব দলের সঙ্গে নেতাদের নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ড. কামাল হোসেন অসুস্থ থাকায় এই বিষয়টা সম্পূর্ণ হতে পারে নাই। সেজন্য কিছু সময় আমাকে ধৈর্য ধরতেই হবে, আমাদেরকে ধরয্য ধরতে হবে। আপনি আল্টিমেটাম দিয়েছিলেন এরকম প্রশ্নের জবাব নাকচ করে দিয়ে কাদের সিদ্দিকী বলেন, আমি কোনো দিন আল্টিমেটাম দেইনি। আমি প্রশ্ন রেখেছিলাম। অনেকে অনেকের মতো করে ইয়ে করেন। আল্টিমেটাম অন্য জিনিস। তিনি বলেন, এই নির্বাচনকে প্রত্যাখান ও পূনঃনির্বাচনের প্রত্যাশা আমাদের মনে হয়েছে-এটা জাতীয় আকাংখা, এটা জাতির কথা। পরবর্তিতে সংসদে ছিঁটে ফোটা ৬/৭ সদস্য ভাত খেতে গেলে যেমন ভাত পড়ে, এরকম ছিঁটে ফোটা কয়েকজন শপথ নেয়ায় জাতি মর্মাহত হয়েছে। সেই প্রশ্নগুলোই আমরা ঐক্যফ্রন্টের প্রবীন নেতা ও ঐক্যফ্রন্টের কাছে করেছি। আমরা বিশ্বাস করি মানুষের নিরাপত্তা নাই, প্রতিদিন মানুষ মরছে, এই যে অব্যবস্থাপনা- এর থেকে বাঁচতে হলে বৃহত্তর ঐক্য দরকার।” এর আগে বিকাল সোয়া ৪টায় শুরু হয়ে শেষ হয় সন্ধ্যায় ৬টায়। রুদ্ধদ্বার এই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন জেএসডির সভাপতি আসম আবদুর রব উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আবদুল মঈন খান, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, হাবিবুর রহমান তালুকদার, ইকবাল সিদ্দিকী, গণফোরামের অধ্যাপক আবু সাইয়িদ, সুব্রত চৌধুরী, রেজা কিবরিয়া, নাগরিক ঐক্যের ড. জাহেদ-উর রহমান, মমিনুল ইসলাম, বিকল্পধারার নুরুল আমিন ব্যাপারী, শাহ আহমেদ বাদল, জেএসডির আবদুল মালেক রতন, শহিদউদ্দিন মাহমুদ স্বপন ও গণস্বাস্থ্য সংস্থার ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..

এ জাতীয় আরো খবর পড়ুন

All rights reserved © 2019 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY sdsubrata.info
Translate »