সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ১০:৫২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম:
বেড়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের প্রতিষ্ঠানে ভাংচুর লুটপাট,আহত দুই রূপসায় ডেঙ্গুতে আক্তান্ত হয়ে কাঁচামাল ব্যবসায়ীর মৃত্যু সাঁথিয়ায় ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে জখম করে টাকা ছিনতাই জামালপুরে শীর্ষ জঙ্গি জেএমবি প্রধান শায়খ আব্দুর রহমানের বন্ধ মাদ্রাসা চালু করতে তৎপরতা শুরু চট্টগ্রামে ধর্ষণের অভিযোগে ভন্ড পীর গ্রেপ্তার কেশবপুরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে পৌর মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত সাপাহারে ইয়াবাসহ যুবক আটক ঝালকাঠিতে পিতা হত্যার দায়ে পুত্রের মৃত্যুদন্ডাদেশ জামালপুরে ডেঙ্গু জ্বরে ২৪ ঘন্টায় ২ রোগির মৃত্যু আগামী দুই বছরের মধ্যেই অর্থনৈতিক মন্দার কবলে পড়বে যুক্তরাষ্ট্র খুলনায় আধুনিক কৃষি বিপ্লব! গুটি কলম পদ্ধতিতে পেঁপে চাষে নতুন দিগন্ত পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষরোপনের বিকল্প নেই ডিমলায় নোংরা ও দুর্গন্ধ পরিবেশ সৃষ্টি করায় তিন ব্যবসায়ীকে জরিমানা ঝালকাঠিতে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে গৃহপরিচালিকাকে ধর্ষন অভিযোগে মামলা ঝালকাঠি কাঁঠালিয়ায় পালিত সাপের দংশনে সাপুড়ের মৃত্যু  কুমিল্লায় অসুস্থ স্ত্রীকে নিয়ে হাসপাতালে নাজেহাল নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নবীগঞ্জে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ অনুষ্ঠিত ঝালকাঠি রাজাপুরে দুঃস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের চিকিৎসা সহায়তার চেক বিতরণ হাটহাজারী ফটিকা শাহজালাল পাড়ায় এলাকাবাসীর উদ্যোগে ইভটিজিং ও মাদক বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত নওগাঁর সাপাহারে পুকুরের পানিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু
নরসিংদী জেলার বিভিন্ন উপজেলায় জমে উঠেছে কোরবানী

নরসিংদী জেলার বিভিন্ন উপজেলায় জমে উঠেছে কোরবানী পশু হাট

ফাইল ছবি

রুদ্র জেলা প্রতিনিধি, নরসিংদী: এ হাটে গরু কিনতে আসা মোঃ খোরশেদ আলম নামে এক ক্রেতা বলেন, ‘হাটে পছন্দসই গরুর অভাব নেই। তবে বিক্রেতারা দামটা একটু বেশি চাইছেন।’ তবে মাঝারি গরুগুলোর ক্রেতাদের চাহিদা বেশি থাকায় তুলনামূলক দামও একটু বেশি বলে মনে করেন তিনি। বুরুজ মিয়া নামে এক বেপারি জানান, তিনি জানান ঈদুল আজহা উপলক্ষে নরসিংদীর বিভিন্ন উপজেলায় জমে উঠেছে কোরবানির পশুর হাট। ঈদ যতো এগিয়ে আসছে, ততই বাড়ছে বেচা-কেনা। ক্রেতাদের পাশাপাশি হাটগুলোতে ভিড় করছেন বিভিন্ন জেলা থেকে আসা বেপারিরাও। নরসিংদী জেলার প্রধান পশুর হাটগুলো হচ্ছে-নরসিংদী সদর উপজেলার করিমপুর, শিবপুরের পুটিয়া, যোশর বাজার, গড়বাড়ী বাজার ও শিবপুর সদর বাজার। মনোহরদীতে বাসস্ট্যান্ড বাজার, হাতিরদিয়া ও চালাকচর বাজার। বেলাবোতে সদর বাজার, নারায়ণপুর বাজার, দক্ষিণ বটেশ্বর বাজার ও পোড়াদিয়া বাজার। রায়পুরায় শ্রীরামপুর বাজার, মৌলভী বাজার, জংগী শিবপুর, রামনগর (শুক্কুইরা বাজার), রাধাগঞ্জ, বাইশমৌজা ও মনিপুরা বাজার। পলাশ উপজেলার চর্নগরদী, তালতলী ও ঘোড়াশাল বাজার। এছাড়া নিয়মিত এ হাটগুলোর পাশাপাশি কোরবানি উপলক্ষে বসেছে অস্থায়ী আরো ৭৩টি গরু, মহিষ ও ছাগলের হাট। তবে স্থায়ী হাটগুলো জমে উঠলেও অস্থায়ী হাটগুলো এখনো তেমন একটা জমজমাট হয়ে উঠেনি। বৃহস্পতিবার রায়পুরা উপজেলার মনিপুরা পশুর হাটে গিয়ে দেখা গেছে, ছোট-বড় ও মাঝারি আকারের অসংখ্য দেশীয় গরু হাটে উঠেছে। ৩০ হাজার থেকে শুরু করে পাঁচ লাখ টাকার গরু ও হাটে এসেছে। এছাড়া হাটে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মহিষ ও ছাগল নিয়ে এসেছেন বিক্রেতারা। তবে বাজারে ক্রেতা অনুসারে পশুর সংখ্যা ছিল অনেক বেশি। হাটের নির্ধারিত জায়গা ছাড়িয়ে হাট ছড়িয়ে পড়েছে আশপাশের পতিত জমি ও সড়কগুলোতে। কিন্তু বিক্রেতারা দাম হাকাচ্ছে অনেক বেশি তাই ক্রেতাদেরকে তাদের সাধ্যমতো দামদর করতে দেখা গেছে। হাট ভর্তি পশু থাকলেও বিক্রি হচ্ছে কম। তবে বিক্রিতাদের চাহিদা অনুসারে দাম না পাওয়ায় অনেকে হাট থেকে পশু ফেরতও নিচ্ছেন। বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে ছোট আকার গরুর দাম চাওয়া হচ্ছে ৬০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা। মাঝারি আকারের গরু ১ লাখ থেকে ৩ লাখ টাকা পর্যন্ত। ছোট আকারের মহিষের দাম চাওয়া হচ্ছে ৭০ হাজার থেকে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা এবং বড় আকার মহিষ দুই লাখ থেকে ৩ লাখ টাকা। ছোট খাসির দাম চাওয়া হচ্ছে ১০ হাজার থেকে ২০ টাকা এবং মাঝারি আকার খাসি দাম চাওয়া হচ্ছে ২০ হাজার থেকে ৩০ হাজার টাকা। হাটে কামরুল ইসলাম নামে এক মহিষ বিক্রেতা জানান, তিনি গত দুই মাস আগে বিক্রির উদ্দেশে ২ লাখ ৩০ হাজার টাকায় দু’টি মহিষ কিনেছিলেন, লালন-পালন করে ঈদে বিক্রি করবেন। এখন বাজারে এনে দেখে তার লোকসান গুণতে হচ্ছে। এদিকে পশুর হাটগুলোতে জেলা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকেও প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2019 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY sdsubrata.info
Translate »