রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০২:৫৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম:
সাবেক প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজমের প্রচেষ্টায় উন্নয়ন হচ্ছে জামালপুর ইউপি সদস্য ও তার সহচর কর্তৃক ধর্ষিত হয়ে বিধবার আত্মহত্যা! দূর্নীতি বিরোধী শুদ্ধি অভিযানকে স্বাগত জানিয়ে নীলফামারিতে র‌্যালী ও সমাবেশ জামালপুরের মেলান্দহে ধান বোঝাই ট্রাক্টর উল্টে চালকের মৃত্যু রাশিদুলের দুটি কিডনিই বিকল,মানবিক সাহায্যের আবেদন ঝালকাঠিতে ইলিশ নিধন অপরাধে তিন জেলেকে কারাদন্ড  ঝালকাঠিতে ইলিশ মাছ  নিয়ে পালানোর নালায় পড়ে প্রবাসীর মৃত্যু দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযানকে স্বাগত জানিয়ে নীলফামারীতে র‌্যালী ও সমাবেশ ধামরাই প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন সাঁথিয়া সরকারি হাই স্কুলে প্রশ্নপত্র না থাকায় নির্বাচনী পরীক্ষা দিতে পারেনি ১৮৯জন শিক্ষার্থী বেড়ায় ভ্রাম্যমানে জেল জরিমানা ইলিশসহ কারেন্ট জাল জব্দ সাটুরিয়ায় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে সিএনজির চাঁদা তুলা বন্ধ আওয়ামীলীগের স্লোগান জয় বাংলা নয়, এটি মুক্তিযুদ্ধের রণধ্বনি: আকম মোজাম্মেল হক জামালপুরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কণিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মদিন পালিত আবরার হত্যা ও সমসাময়িক রাজনীতি নিয়ে বাংলাদেশ কংগ্রেসের উন্মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তারা সবাই জনগণের চাকর: তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এমপি রূপগঞ্জ ইউপি’র নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান সালাহউদ্দিন ভুঁইয়াকে ফুলেল শুভেচ্ছা সাটুরিয়ার জান্নায় পল্লী বিদ্যুতের উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত জাবিতে দোয়া মাহফিল ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণের মাধ্যমে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালন ধামরাইয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার
পাসপোর্টের ভেরিফিকেশনে পুলিশি বিড়ম্বনা সোনারগাঁয়ে

পাসপোর্টের ভেরিফিকেশনে পুলিশি বিড়ম্বনা সোনারগাঁয়ে

ফাইল ছবি

মোঃ ফয়সাল ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধিঃ যখন পাসপোর্টের মান বাড়াতে তৎপর সরকার তখনই নতুন পাসপোর্টের আবেদন কারীদের মধ্যে রয়েছে এ বিষয়ে বিরূপ ধারণা। কাগজ-পত্র দাখিল করে যত দ্রুত গতিতে আঙ্গুলের ছাপ, ছবি তুলে আবেদন সম্পন্ন করা হয়, ঠিক তারই উল্টো চিত্র দেখা যায় পাসপোর্ট ভেরিফিকেশন করার ক্ষেত্রে। আবেদন করার পর থেকেই সেই পাসপোর্ট নিয়ে শুরু হয় নানা বিড়ম্বনা। এই বিড়ম্বনা সবচেয়ে বেশি দেখা যায়, ভেরিফিকেশনের নামে কিছু পুলিশ সদস্যের টাকা হাতিয়ে নেয়াকে ঘিরে। আবেদনকারীর সত্যতা যাচাই-বাছাই করতে তার বাসায় না গিয়ে ফরমে দেয়া ফোন নম্বরে যোগাযোগ করেই, চায়ের দোকানে বা রাস্তায় দাঁড়িয়ে খরচাপাতির মাধ্যমে সম্পন্ন হয় পুলিশি ভেরিফিকেশনের কাজ। পাসপোর্ট পাওয়ার বিড়ম্বনা থেকে বাঁচতে খুশির তুলনায় এখন বেশির ভাগ মানুষই বাধ্য হয়েই দেয় এই খরচাপাতির টাকা। এইচএসসি পরীক্ষার্থী জাহাঙ্গীর আলম, বাবা-মায়ের সঙ্গে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানার পিরোজপুর ইউনিয়নের ছয়হিস্যা এলাকায় বাস তার। পরিবারের সাথে ওমরা করতে দেশের বাইরে যাওয়ার জন্য গত ৩রা মে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করেন তিনি। ডেলিভারি স্লিপে উল্লেখ থাকা ২১ দিন পর পাসপোর্ট পাবার কথা ছিল তার। কিন্তু তার এই পাসপোর্ট পাবার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ পুলিশ ভেরিফিকেশন। আবেদনের কিছুদিন পরই আব্দুল হাই নামে এক পুলিশ সদস্যের ফোন আসে জাহাঙ্গীর আলমের কাছে। নাম-ঠিকানা নিশ্চিত হওয়ার পর তার সঙ্গে দেখা করার কথা বলেন তিনি। কিন্তু ভেরিফিকেশন করতে বাসায় আসার কথা বলতেই একটু ব্যস্ত আছি বলে এড়িয়ে যায় পুলিশ সদস্য। উল্টো তিনি জানান, দেখা করতে বলেন। তা না হলে আপনার পাসপোর্ট প্রিন্টে যাবে না। সঙ্গত কারণেই শিক্ষার্থী জাহাঙ্গীর তার মামাকে আব্দুল হাইয়ের নম্বর দিয়ে ফোন করতে বলেন। মামা বলেন, আপনি ভেরিফিকেশনের জন্য এসেছেন তাহলে বাসায় আসেন। আমরা কোথায় থাকি, কি করি সেটা দেখে যান। কিন্তু আব্দুল হাই কোনোভাবেই বাসায় আসতে রাজি না। জাহাঙ্গীরের মামার ফিরতে রাত হয়ে যাবে শুনেও যত রাতই হোক তার সঙ্গে দেখা করার নির্দেশ দেন তিনি। অনেকটা বাধ্য হয়ে একাই দেখা করতে যান জাহাঙ্গীর আলম। দেখা হলে আব্দুল হাই বলেন, আমার শুধু আপনার একটা স্বাক্ষর লাগবে, এজন্য বাসা-বাড়িতে যাওয়া একটু ঝামেলার কাজ। আপনারা কে কেমন অবস্থায় থাকেন। এজন্যই বাইরে দেখা করি। সঙ্গত কারণেই তখন কিছু সময়ের জন্য আব্দুল হাইকে নিয়ে মনে একটা ভালো ধারণা সৃষ্টি হয়। কিন্তু স্বাক্ষর করার পরই চা-পান খাওয়ার জন্য বকশিশ দাবি করেন আব্দুল হাই। পকেট থেকে দুইশ’ টাকা বের করে দিতে গেলে আব্দুল হাই বলেন, এসব কি দিচ্ছেন। এক হাজার টাকাতো দেবেন। এতো টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় কিছুটা চটে গেলেন পুলিশ সদস্য। জাহাঙ্গীর বলেন, আপনি ভেরিফিকেশন করবেন করেন। এতে আবার টাকা দিতে হবে কেন। আমি তো আর চোর-সন্ত্রাসী না। উত্তরে আব্দুল হাই বলেন, টাকা দিলে ভেরিফিকেশন হবে, না দিলে হবে না। এটাই নিয়ম। সবাই জানে। দীর্ঘ কথাকাটাকাটির পর বাধ্য হয়েই এক হাজার’ টাকা দিয়ে ফিরে যান তিনি। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আব্দুল হাই নারায়ণগঞ্জ ডিএসবি শাখার একজন সদস্য। তিনি ছাড়া আরো দুইজন ডিএসবি সদস্য সোনারগাঁ থানার পুলিশ ভেরিফিকেশনের কাজ গুলো সম্পন্ন করে থাকেন। এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজজামান জানান, পাসপোর্টের পুলিশ ভেরিকেশনের কাজ সোনারগাঁ থানা ও ডিএসবি শাখা দুই জায়গা থেকেই হয়। তিনি আব্দুল হাই নামে সোনারগাঁ থানায় কেউ নেই দাবি করেন। ভেরিফিকেশনে টাকা হাতিয়ে নেয়া পর্যন্তই ক্ষ্যান্ত হননি এই পুলিশ কর্মকর্তা। টাকা নেয়ার দুই দিন পর এইচএসসি পরীক্ষার্থীকে আবারও ফোন দিয়ে হুমকি দেন। তার মামা কি করে? তারা এটা নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে ভাল হবে না বলেও হুমকি দেন আব্দুল হাই। দেখে নেয়ার কথা জানান আব্দুল হাই নামের এই অসাধু পুলিশ কর্মকর্তা। এ বিষয়ে বাংলাদেশ বহিরাগমন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জের এডি মোঃ মাকসুদুর রহমান বলেন, পাসপোর্টের সব রকম এনরোলমেন্টের কাজ সবই আমাদের হাতে থাকে। কিন্তু ভেরিফিকেশনের দায়িত্ব পুরোটায় থাকে পুলিশের বিশেষ বিভাগের উপর। তারা কার কাছ থেকে টাকা নিয়ে ভেরিফিকেশন করছে এটা তাদের ব্যাপার। এ বিষয়ে আমাদের কোনো হস্তক্ষেপ নেই। বিষয়টি নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার দেখেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter

এ জাতীয় আরো খবর পড়ুন

All rights reserved © 2019 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »