বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ০৫:০৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম:
ভারতে বিপুল জয়ের দিকে এগোচ্ছে বিজেপি যশোরের মনিরামপুরে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা! যশোরের মণিরামপুরে স্কুলের জমি দখল করে হাট, ১৪৪ ধারা জারি জাবিতে ঢাকা জেলা সমিতির কমিটি প্রদান ঠাকুরগাঁওয়ে কষ্টি পাথর নিয়ে আত্মগোপনে গোলাম রব্বানী অসহায় কৃষকের বর্তমান চিত্র তুলে ধরেছেন ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবধু হত্যা মামলার ৩ আসামী আটক টেকনাফে ৩ রোহিঙ্গা নারীর পেট থেকে ইয়াবা উদ্ধার ওদের জন্ম নৌকায় অর্থের বিনিময়ে এ কার্ড বিত্তবানদের দিচ্ছেন অভিযোগ জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে জাবিতে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড কমিটি প্রদান লালমনিরহাটে প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  জামানত ছাড়াই ১০ লাখ টাকার বেশি ঋণ পাবে নতুন উদ্যোক্তা  গলাচিপায় ধরা পড়া অজগর অবমুক্ত, হরিণের করুন মৃত্যু পটুয়াখালীতে শাহিনের সংবাদ সম্মেলন রাঙ্গাবালীতে মামলা করায় বাদীসহ চারজনকে আহত পটুয়াখালীতে ভাড়ার টাকা চাওয়ায় রিক্সাওয়ালাকে মারধর গলাচিপায় মাধ্যমিক স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কে নিয়ে তোলপাড় ! কেশবপুর সুবোধমিত্র মেমোরিয়াল অর্টিজম ও প্রতিবন্দী বিদ্যালয় ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন বেড়ায় ফেন্সিডিল,গাঁজাসহ ৫মাদক ব্যবসায়ী আটক
বদরখালী ইউনিয়নে ১০/১৫ হাজার টাকা ছাড়া মিলছেনা

বদরখালী ইউনিয়নে ১০/১৫ হাজার টাকা ছাড়া মিলছেনা অসহায় গরীবদের জন্য দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর

ফাইল ছবি
প্রধান প্রতিবেদকঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি আশ্রয়ন ২ প্রকল্পের অধীন জমি আছে ঘর নেই,তার নিজ জমিতে গৃহ নিমার্ণ  ১০ / ১৫ হাজার টাকা ঘুষ ছাড়া মিলছেনা।
সরকারি হিসাবে প্রতিটি নতুন ঘর তৈরীতে এক লাখ টাকা বরাদ্দ থাকলে ও তালিকা প্রস্তুত করার সময় স্হানীয় জনপ্রতিনিধিরা  নিরবে হাতিয়ে নিচ্ছে ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা করে। এক অসহায়  জমি আছে ঘর নেই, তার নিজ জমিতে গৃহ নিমার্ণ  পাওয়ার উপযোগি জানান আমার ১০ / ১৫ টাকার দেওয়ার তফিক নাই বলে স্হানীয় জনপ্রতিনিধিরা আমার ঘরে তালিকা করে নাই।
অসহায় মহিলা ছফুরা খাতুন জানান আমাদের মত গরীবদের খবর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী রাখলে ও স্হানীয় জনপ্রতিনিধিরা রাখেনা। কারণ আমরা অসহায় পরিবার বলে ঘুষ দিতে না পারায় স্হানীয় জনপ্রতিনিধিরা  আমাদের খবর রাখেনা।
প্রকৃত আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর পাওয়ার উপযোগিরা  ১০/১৫ হাজার টাকা দিতে না পারলে প্রকৃত গরীবেরা উক্ত মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া আশ্রয়ন প্রকল্পের  ঘর থেকে বঞ্চিত।
বদরখালী ইউনিয়ন পরিষদ চত্বর থেকে  ইতিমধ্যে কিছু আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর  বিভিন্ন উপকারভোগীদের কাছে মালামালসহ পৌছে গেছে।  আর বাকী ২য় কিস্তির আশ্রয়ন প্রকল্পের বরাদ্দ পাওয়া ২শত ৫০ টি মত  ঘরের তালিকা প্রস্তুত করার সময় নগদে  ১০থেকে ১৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে জনপ্রতিনিধিরা।  তালিকায় ঘরের নাম দেওয়া একব্যক্তি জানান ১০/১৫ হাজার টাকা দেওয়ার পর ও  ঘর নির্মাণের সময় নাকি আরো টাকা দিতে হবে জনপ্রতিনিধিদের কে।
আর উক্ত আশ্রয়ন প্রকল্পের দুর্নীতির ও অনিয়ম এর তথ্য প্রয়োজন হলে জনস্বার্থে বদরখালীর সুশীল সমাজ ও সংবাদকর্মীর সাথে  যোগাযোগ করবেন।
দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2019 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY sdsubrata.info
Translate »