বুধবার, ২৬ Jun ২০১৯, ১২:০৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম:
ঝালকাঠির কন্যা পরমা সাঁথিয়ায় সাড়ে ৩ বছরের শিশুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা সাটুরিয়ায় মৎস্য চাষিদের অভিজ্ঞতা বিনিময় ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত যশোরের মণিরামপুরে কর্মসূচির তালিকায় মেম্বরের স্বামী ও বিত্তবানদের নাম সাংবাদিকের সাথে পুলিশের অশোভনীয় আচরনের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সাংবাদিক সংগঠন মানিকগঞ্জের জাসদের সভাপতি ইকবাল আর নেই যশোরের উলাশী নীলকুঠি পার্কে বোমা বিষ্ফোরন, ৩ জন আহত মানিকগঞ্জে চাঁদাবাজি বন্ধে প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও ধর্মঘট জলঢাকায় ধর্মপাল ইউনিয়নের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা কেশবপুরের গৌরীঘোনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত মজিদপুর ইউপির চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী নরসিংদীতে ট্রেনে কাটা পড়ে স্কুল পড়–য়া ছাত্র রাজিব মিয়া নিহত যশোর কোতয়ালী থানার পাস থেকে ৩৯১ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক-২ সুন্দরগঞ্জে ব্যক্তিগত জমিতে স্কুল ঘর নির্মাণের অভিযোগ পহেলা জুলাই সোমবার সকাল ১০ টায় কেজিডিসিএল অফিসের সামনে অবস্থান কর্মসূচি নওয়াপাড়া পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডেরউপ-নির্বাচন সম্পন্ন সোনাগাজী প্রেসক্লাব নির্বাচন, সভাপতি মনির -সম্পাদক হানিফ যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি অপূর্ব হাসান স্ট্যান্ডরিলিজ রং নাম্বারে প্রেম-প্রেমের দাওয়াতে পার্লারের আড়ালে দেহ ব্যবসার অভিযোগ বাকেরগঞ্জে উপজেলা ইসলামী যুব সম্মেলন অনুষ্ঠিত
সামান্য কোলেস্টরেল পুষ্টি গুণে সেরা কাদাকনাথ মুরগির

সামান্য কোলেস্টরেল পুষ্টি গুণে সেরা কাদাকনাথ মুরগির মাংস ডিম যার সবই কালো

ফাইল ছবি

আবু সায়েম মোহাম্মদ সা’-আদাত উল করীম: কাদাকনাথ মুরগি ( Kadaknath Chicken ) কাদাকনাথ মুরগি ভারতীয়ান ব্রিড। ভারতের মধ্যপ্রদেশের পূর্বাঞ্চলীয় জেলা ঝাবুয়া (Jhabua) এবং ধার ( Dhar ) এ জাতের মুরগির আদি নিবাস। সেখানে এ জাতের মুরগিকে আঞ্চলিক ভাষায় ‘কালি মাসি (Kali masi)’ বলে। কাদাকনাথ মুরগির মাংসে উচ্চ মাত্রায় প্রোটিন, যৎসমান্য পরিমাণে ফ্যাট ও ক্লোস্টেরল থাকে। যার ফলে মানুষের কাছে কাদাকনাথ মুরগির মাংসের চাহিদা অনেক বেশি। কাদাকনাথ মুরগির বৈজ্ঞানিক নাম: গ্যালাস গ্যালাস ডোমেস্টিকাস (Gallus gallus domesticus). কাদাকনাথ মুরগি বছরে ১২০ থেকে ১৩০ টি ডিম দেয়। এর দৈহিক ওজন ১.৫ কেজি/ ১২০ থেকে ১৩০ দিনে। কাদাকনাথ মুরগির মাংস,হাড়, নার্ভ ,ডিম,এমনকি নাড়িভুঁড়িও কালো হয়ে থাকে। কাদাকনাথ কি (What is Kadaknath? ) ? কাদাকনাথ হলো ভারতের ‘ব্ল্যাক মিট চিকেন (Black Meat Chicken )’ ।সহজে B.M.C বলা হয়। ভারতের মধ্যপ্রদেশের পূর্বাঞ্চলীয় জেলা ঝাবুয়ার উপজাতি সম্প্রদায়ের লোকজন সাধারণত কাদাকনাথ মুরগি পালন করে থাকে। মেডিসিনাল গুণ থাকায় কাদাকনাথ মুরগি ভারতের গণ্ডি পেরিয়ে বর্তমানে বাংলাদেশ সহ অনেক দেশে এ জাতের মুরগি পালন করা শুরু হয়েছে। কাদাকনাথ মুরগির বৈশিষ্ট্য (Characteristics of Kadaknath Chicken) ১। একদিন বয়সের বাচ্চার ( day old chicks) পিঠে নীলাভ থেকে কালোর সাথে অসম শ্যাম মিশ্রিত ডোরাকাটা দাগ থাকে। ২। পূর্ণ বয়স্ক কাদাকনাথ মুরগির পালকের ( Adult plumage ) রঙের তারতম্য হতে পারে এবং রূপালী (Silver) ও সোনালী রঙের চুমকি বসানো (gold -spangled) থেকে নীলাভ কালচে রঙ যা চুমকি বসানো ছাড়াও (bluish- black without any spangling) হতে পারে। ৩। কাদাকনাথ মুরগির চামড়া,ঠোঁট,স্যান্ক (shanks), নখ (toes), এবং পায়ের তালু (soles of feet) দেখতে স্লোট ( slate) রঙের মতো (soles of feet are slate like colour) ।ঝুটি (comb),ওয়াটল ( wattles) ও জিহ্বা (tongue) রক্ত বর্ণের ( the comb,wattles and tongue are purple) ।দেহের ভিতরের অধিকাংশ অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ দেখতে তীব্র কালো রঙের ( most of the internal organs show intense black colouration) বিশেষ করে ট্রাকিয়া(trachea ), থোরাসিক ( thoracic) ও এবডোমিনাল এয়ার স্যাক ( abdominal air sac),গোনাড (gonad) , হৃদপিণ্ডের বেস ( at the base of the heart) ও মেসেন্টারি ( mesentry) । ৪। The blood of Kadaknath Chicken is darker than normal, the black pigment is the result of melamine deposition. কাদাকনাথ মুরগি জনপ্রিয়তার কারণ (Causes of popularity Kadaknath Chicken in human beings) কাদাকনাথ মুরগি জনপ্রিয় হওয়ার অনেক কারণ রয়েছে। এ জাতের মুরগি সহজেই যে কোন পরিবেশে পালন করা সম্ভব। কাদাকনাথ মুরগির মাংস মানে ও গুণে অন্যান্য পাখির মাংস থেকে সেরা। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অন্যান্য যে কোন পাখি থেকে বেশি। মাংসের ধরণ ও গন্ধ অন্যান্য যে কোন পাখি থেকে ভালো। কাদাকনাথ মুরগির মাংস শুধুমাত্র স্বাদের জন্যই সেরা নয়; এ জাতের মুরগির মাংসের মেডিসিনাল ভ্যালুও (Medicinal Value) আছে। নিউট্রিটিভ ভ্যালু (Nutritive value of kadaknath chicken meat) হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা ও নার্ভাস ডিসফাংশনে কাদাকনাথ মুরগির মাংস ব্যবহার করা হয়। ১। সাধারণ পাখি থেকে কাদাকনাথ মুরগির মাংসে প্রোটিনের পরিমাণ বেশি। কাদাকনাথ মুরগির মাংসে প্রোটিনের পরিমাণ ২৫ % ।যা সাধারণ পাখিতে থাকে ১৮ থেকে ২০% । ২। কাদাকনাথ মুরগির মাংসে ক্লোস্টেরলের পরিমাণ ০.৭৩ থেকে ১.০৫% ।যা সাধারণ পাখিতে ১৩ থেকে ২৫%।অর্থাৎ কাদাকনাথ মুরগির মাংসে ক্লোস্টেরলের পরিমাণ অন্যান্য পাখি থেকে যৎসমান্য। ৩। কাদাকনাথ মুরগির মাংসে উচ্চ মানের ১৮ টি এমাইনো এসিড (Amino acids) আছে। যার মধ্যে ৮ টি এমাইনো এসিড মানুষের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ (Crucial amino acids for human beings) এবং হরমোন সমৃদ্ধ। ৪। কাদাকনাথ মুরগির মাংসে ভিটামিন বি১, বি২, বি৬, বি১২, ভিটামিন-সি,ভিটামিন-ই ,নিয়াসিন ,ক্যালসিয়াম,ফসফরাস,আয়রন,নিকোটিনিক এসিড ইত্যাদি পর্যাপ্ত পরিমাণে রয়েছে। মধ্যপ্রদেশের উপজাতি সম্প্রদায়ের লোকজন কাদাকনাথ মুরগির রক্ত মানুষের ক্রোনিক রোগের চিকিৎসায় ব্যবহার করে এবং গবেষকরা হার্টে রক্ত প্রবাহ বৃদ্ধিতে ব্যবহার করে। কাদাকনাথ মুরগির মাংস মহিলাদের ক্ষেত্রে ম্যানোরেক্সিয়া (abnormal menstruation), habitual abortion ও sterility তে ব্যবহার করা হয়। কাদাকনাথ মুরগির ডিম বয়স্কদের জন্য ভালো। বিশেষ করে যারা উচ্চ রক্তচাপে ভোগেন। ডিমে ক্লোস্টেরলের পরিমাণ কম ও অন্যান্য পাখির ডিমের চেয়ে এমাইনো এসিডের পরিমাণ বেশি। এছাড়াও কাদাকনাথ মুরগির ডিম মানুষের মারাত্মক মাথা ব্যথা রোগের চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয়। প্রসব পরবর্তী ব্যথা,দুর্বল চিত্তের (faintness)রোগের চিকিৎসায়,কিডনি প্রদাহ (Chronic and acute inflammation of the kidney) চিকিৎসাতেও ব্যবহার করা হয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2019 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY sdsubrata.info
Translate »